৬, ৬, ৬, ৬, ৪, ৬- আইপিএলের মধ্যেই ১ ওভারে ৩৪ রান পাকিস্তানের বোলারের (দেখুন ভিডিওসহ)

৬, ৬, ৬, ৬, ৪, ৬ – পা’কি’স্তা’নে’র এ’ক’টি টু’র্না’মে’ন্টে ঝ’ড় তু’ল’লে’ন পা’ক এ’ক বো’লা’র উ’সা’মা মী’র। অ’র্থা’ৎ ও’ই এ’ক ও’ভা’রে ব্যা’টিং তা’ণ্ড’বে ৩৪ রা’ন তো’লে’ন। এ’ই তা’র’কা ক্রি’কে’টা’র স’ব’মি’লি’য়ে ঘা’নি র’ম’জা’ন টা’র্নি”তে মা’ত্র ২০ ব’লে ৬৬ রা’ন ক’রে’ন মী’র।

এ’ই তা’ণ্ড’ব’ম’য় ই’নিং’সে’র প’র পা’কি’স্তা’নে’র নে’টি’জে’ন’দের এ’কাং’শের ব’ক্ত’ব্য, পা’কি’স্তা’নে’র ক্রি’কে’টে’র ভ’বি’ষ্য’ৎ হ’তে চ’লে’ছে’ন এ’ই ক্রি’কে’টা’র। সে’ই’স’ঙ্গে’ ও’ই ও’ভা’রে’র ভি’ডি’য়ো সো’শ্যা’ল মি’ডি’য়ায় ভা’ই”রা’ল হ’য়ে গি’য়ে’ছে দা’রু’ন ভা’বে।

পবিত্র রমজান মাসের সময় যে টুর্নামেন্ট হয়, নিরহারিত সেই টুর্নামেন্টে টসে জিতে প্রথমে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় আসরের অন্যতম নির্ভরযোগ্য দল করাচি ওয়ারির্স। করাচি ওয়ারির্স প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ব্যাপক ব্যাটিং

তাণ্ডবে ছয় উইকেটে ২৩৬ রান তোলে ঘানি ইনস্টিটিউট অফ ক্রিকেট (জিআইসি)। যেটা সম্ভব হয়েছে মীরের বিধ্বংসী ইনিংসের জন্য। যিনি ২০ বলে ৬৬ রান করেন। সেইসঙ্গে ১৬ তম ওভারে ৩৪ রান তোলেন। ওই ওভারে বল করছিলেন

রিস্ট স্পিনার ইমরান। প্রথম চারটি বলে ছক্কা হাঁকান মীর। পঞ্চম বলটা একটুর জন্য ছক্কা হয়নি। চার হয়ে যায়। তবে ষষ্ঠ বলে ফের ছক্কা হাঁকান মীর।এমনিতে পাকিস্তানের ক্রিকেট ক্যালেন্ডারে ঘানি রমজান টার্নি বেশ গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট।

সবমিলিয়ে পবিত্র রমজান মাসে পাকিস্তানে একাধিক টুর্নামেন্ট খেলা হয়ে থাকে। যে সব টুর্নামেন্টে জাতীয় দলের অধিনায়ক বাবর আজম, শাদাব খান, ইসানুল্লাহ, আজম খান, উসমান কাদির, উমর আকমল, আহসান আলি এবং

আবিদ আলি-সহ পাকিস্তানের একাধিক তারকা খেলেন।পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) মুলতান সুলতানসে খেলেন পাকিস্তানের মীর। তবে এখনও আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে খেলেননি ২৭ বছরের ক্রিকেটার।

ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে পাকিস্তানের জার্সি এখনও পরার সুযোগ না পেলেও ইতিমধ্যে ৫০ ওভারের ক্রিকেটে জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করে ফেলেছেন। ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে অভিষেক হয়। এখনও পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে তিনটি একদিনের ম্যাচে চারটি উইকেট নিয়েছেন। ইকোনমি রেট চমকপ্রদ – ৪.৮৩। ব্যাট হাতে ১৮ রান করেছেন।

https://help.twitter.com/en/twitter-for-websites-ads-info-and-privacy