৪০ বছর বয়সে ক্রিকেট বিশ্বকে অবাক করে দিল অ্যান্ডারসন

ক্রিকেট বিশ্বে অনেক তারকা অনেক কৃতি করে দেখিয়েছে। তবে কিছু কিছু রেকর্ড অন্যতম। ক্রিকেট বিশ্বে এখন বয়স তার ৪০ পেরিয়েছে। তবে ২২ গজের মাঠে এখনও ভাটা পড়েনি ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম তারকা জেমস

অ্যান্ডারসনের পারফরম্যান্সে। এই তারকা ক্রিকেটারতরুণদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ইংল্যান্ডের টেস্ট দলে দাপটের সঙ্গেই টিকে রয়েছেন ডানহাতি এই পেসার।বর্তমান সময়ের ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছেন

ক্রিকেটার অ্যান্ডারসন। বর্তমানের অজি দলের টেস্ট অধিনায়ক প্যাট কামিন্সের ৪ বছরের রাজত্ব থামিয়ে আইসিসির টেস্ট বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠে এসেছেন ডানহাতি এই পেসার।সদ্য শেষ হয়ে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের

বিপক্ষে মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে বল হাতে ৭ উইকেট নেন ৪০ বছরেরেই তারকা। যার ফলে এক ধাপ এগিয়ে শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। নিজের ক্যারিয়ারে ৬ষ্ঠ বারের মতো আইসিসির টেস্ট বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠলেন

এই পেসার। ২০১৬ সালে সতীর্থ স্টুয়ার্ট ব্রড ও রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে পেছনে ফেলে প্রথমবার শীর্ষে উঠেছিলেন অ্যান্ডারসন।সাম্প্রতিক ৪০ বছর বয়সে কোনো বোলারের টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে উঠে আসার ঘটনা অবশ্য এবারই প্রথম

নয়। এর আগে বার্ট আয়রনমঙ্গার ৫০ (১৯৩৩ সাল), ক্ল্যারি গ্রিমেট ৪৪ (১৯৩৬ সাল), টিক ফ্রিম্যান ৪১ (১৯২৯ সাল) এবং সিডনি বার্নস ৪০ ((১৯১৪ সাল)) বছর বয়সে টেস্ট বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠেছিলেন।

টেস্ট ইতিহাসে গ্রিমেটের অর্জনের প্রায় ৮৭ বছর পর আবারও এমন ঘটনা দেখা গেল। অ্যান্ডারসনের পর র‍্যাঙ্কিংয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ভারতের এই স্পিন অলরাউন্ডারের রেটিং পয়েন্ট ৮৬৪। তৃতীয়

স্থানে নেমে গেছেন এতদিন শীর্ষে থাকা কামিন্স। তার রেটিং পয়েন্ট ৮৫৮।ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দারুণ পারফরম্যান্স করে টেস্ট ব্যাটারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে এসেছেন টম ব্লান্ডেল (১১তম) এবং ডেভন

কনওয়ে (১৭তম)। একই সিরিজে কিউইদের বিপক্ষে দারুণ খেলায় ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে পৌঁছেছেন ওলি পোপ (২৩তম), হ্যারি ব্রুক (৩১তম) এবং বেন ডাকেট (৩৮তম)।অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বোর্ডার-

গাভাস্কার সিরিজে অসাধারণ বোলিং এবং ব্যাটিং করায় টেস্ট অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে সাত ধাপ এগিয়ে নবম স্থানে এসেছেন রবীন্দ্র জাদেজা। তার সতীর্থ অক্ষর প্যাটেল বল-ব্যাট হাতে অসাধারণ নৈপুণ্য দেখিয়ে দুই ধাপ এগিয়ে পঞ্চম স্থানে এসেছেন। এই সিরিজের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক অক্ষর।