২০২৩ বিশ্বকাপের জন্য একাদশ ঘোষণা করলো বিসিবি

এই যে আশার আলো, বর্ণিল এক স্বপ্ন জয়ের হাতছানি এসবকিছু থেকে বঞ্চিত হতে পারেন অনেক ক্রিকেটার। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ যাত্রা থেকে ছিটকে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এমন সব ক্রিকেটারদেরকে নিয়েই থাকছে আজকের আয়োজন।

‘আমি আগেই বলেছিলাম ২০২৩ সালটা আমাদের ভাল যাবে’। এমন আত্মবিশ্বাসই প্রকাশ করেছেন সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের এমন মন্তব্য আশা জোগায়, ভরসা দেয়, স্বপ্ন দেখতে উদ্বুদ্ধ করে।

২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপটা প্রতিবেশ দেশ ভারতে। বাংলাদেশের চেনা কন্ডিশন, পছন্দের ফরম্যাট। তাছাড়া এশিয়া কাপও রয়েছে সামনে। সেটাও একদিনের ফরম্যাটে।বাংলাদেশের সাবেক ওয়ানডে অধিনায়ক তেমনই প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন।

তিনি বলেছেন, ‘এখনই আমাদের বড় টূর্নামেন্ট জেতার সময়। যেটা হতে পারে এশিয়া কাপ কিংবা বিশ্বকাপ।’১.মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ অভিজ্ঞতায় ভরপুর। তবে সম্ভাবনা অত্যন্ত প্রবল। তিনি হয়ত থাকবেন না ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে।

অন্তত সাম্প্রতিক সময়ে দলের পরিকল্পনায় তিনি নেই। বিশ্রাম শব্দে আটকে ফেলে তাকে রাখা হয়েছে জাতীয় দলের বাইরে।তার সুযোগ পাওয়ার বিষয়টি রীতিমত দিবাস্বপ্ন। বয়সের ভারে তার কার্য্যকারিতা কমেছে। তাছাড়া জাতীয় দল থেকে

খানিক দূরত্ব থাকার সময়টাও খুব একটা কাজে লাগাতে পারছেন না।রোয়া ক্রিকেটে দু’একটা ভাল ইনিংস উপহার দিচ্ছেন ঠিক। তবে নজর কাড়তে পারেননি তিনি। তাই হয়ত তিনি থাকছেন না ভাবনায়।২.দেশের অন্যতম সেরা উইকেটরক্ষক

নুরুল হাসান সোহান। এই বিষয়টি নিয়ে দ্বিধা নেই বললেই চলে। যদিও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশ কয়েকটি দৃষ্টিকটু চিত্রের অবতারণা তিনি করেছেন। তবে সে বিবেচনায় তিনি হয় বাদ যাবেন না বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে।সোহানের ব্যাটিংয়ের খুব বেশি সৌন্দর্য নেই। তাছাড়া তার ব্যাটিং টেকনিকও প্রশ্নবিদ্ধ। এছাড়া তার সীমিত শট নির্বাচন বিপাকে ফেলতে পারে বাংলাদেশ দলকে।