১৪৫ বছরের টেস্ট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এমন বিরল ঘটনার সাক্ষি হলো ক্রিকেটবিশ্ব

টেস্ট ক্রিকেটের জন্মের পর থেকে পুরুষদের ক্রিকেটে আগে যা দেখা যায়নি করাচিতে নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তান টেস্টে তাই দেখল ক্রিকেট বিশ্ব। টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসের পাতায় নাম লেখাল করাচি টেস্ট।প্রথম-দুটি-উইকেট-আসে-

ব্লান্ডেলের-স্ট্যাম্পিং-থেকে১৮৭৭ সালে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটের যাত্রা শুরু হয়। দীর্ঘ সময় ধরে চলে আসা এই ফরম্যাটটির প্রতি মানুষের আগ্রহ বর্তমানে কিছুটা কম থাকলেও সাদা পোশাকের

ক্রিকেটে যে রোমাঞ্চ কাজ করে তা অন্য কোন ফরম্যাটেই দেখা যায় না।২০০২ সালের পর এই প্রথম পাকিস্তানের মাটিতে টেস্ট ক্রিকেট খেলতে আসল নিউজিল্যান্ড। এসেই ১৪৫ বছরের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে যা দেখেনি কেউই,

তা করে দেখাল। টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম।দীর্ঘ সময় পর টেস্ট দলে ফিরেছেন উইকেটরক্ষক ব্যাটার সরফরাজ আহমেদ। তাঁকে জায়গা করে দিতে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে মোহাম্মদ

রিজওয়ানকে। নিজের ৫০তম টেস্ট ম্যাচটি সরফরাজের ঘরের মাঠে এটিই প্রথম।তবে রেকর্ডটা হয়েছে অন্য জায়গায়। ইনিংসের চতুর্থ ওভারের মাথায় স্পিনার এজাজ প্যাটেলকে বোলিংয়ে আনেন নিউজিল্যান্ডের নতুন টেস্ট অধিনায়ক

টিম সাউদি। তৃতীয় বলেই আবদুল্লাহ শফিককে স্ট্যাম্পিং করেন উইকেটরক্ষক টম ব্লান্ডেল।প্রথম উইকেটের পর তৃতীয় ওভারের মাথায় আরও একটি উইকেটের পতন হয় পাকিস্তানের। মিচেল ব্রেসওয়েলের বলে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন

শান মাসুন। ইনিংস প্রথম দুটিই উইকেটই স্ট্যাম্পিং- ১৪৫ বছর টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে পুরুষদের ক্রিকেটে এবারই যা প্রথম।এর আগে এমনটা প্রথম দেখেছিল ১৯৭৬ সালে অস্ট্রেলিয়া ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার নারী টেস্ট ম্যাচে। তবে ছেলেদের ক্রিকেটে করাচি টেস্টের আগে কখনও এমনটা ঘটেনি।