সবাইকে অবাক করে, ঢাকা টেস্টের পর বিদায় নিলেন এক কিংবদন্তি

বাং’লা’দে’শে’র জ’য় নি’শ্চি’ত হ’তে’ই বা’উ’ন্ডা’রি’র দি’কে ছু’ট’লে’ন দু’ই অ’প’রা’জি’ত ব্যা’ট’স’ম্যা’ন মু’শ’ফি’ক–মু’মি’নু’ল এ’বং আ’য়া’র’ল্যা’ন্ড ফি’ল্ডা’র’রা। ড্রে’সিং’রু’ম থে’কে বে’রি’য়ে এ’লে’ন বাং’লা’দে’শে’র খে’লো’য়া’ড়’রাও।মা’ঠ থে’কে বে’রি’য়ে যা’ও’য়া’র প’থে’ দু’ই

পা’শে সা’রি’ব’দ্ধ হ’য়ে’ দাঁ’ড়া’লে’ন খে’লো’য়া’ড়’রা। বাং’লা’দে’শ–আ’য়া’র’ল্যা’ন্ড খে’লো’য়া’ড়’দে’র ‘গা’র্ড অ’ব অ’না’র’ এ’র ম’ধ্য দি’য়ে মি’র’পু’র শে’রে’বাং’লা স্টে’ডি’য়া’মে’র মা’ঠ ছা’ড়’লে’ন আ’লি’ম দা’র।আ’ই’সি’সি’র এ’লি’ট প্যা’নে’লে’র আ’ম্পা’য়া’র হি’সে’বে এ’টি ছি’ল তাঁ’র

শে’ষ টে’স্ট। খে’লো’য়া’ড়’দে’র কা’ছ থে’কে গা’র্ড অ’ব অ’না’রে’র প’র বাং’লা’দে’শ ক্রি’কে’ট বো’র্ড থে’কে স’ম্মা’ন’না’ও পে’য়ে’ছে’ন আ’লি’ম দা’র।১৯ ব’ছ’র আ’ই’সি’সি’র এ’লি’ট’ প্যা’নে’লে থা’কা এ’ই পা’কি’স্তা’নি আ’ম্পা’য়া’রে’র হা’তে স্মা’র’ক তু’লে দে’ন বি’সি’বি প্রে’সি’ডে’ন্ট

নাজমুল হাসান।২০০০ সালে আন্তর্জাতিক ম্যাচ পরিচালনা শুরু করা আলিম দার ২০০২ সালে আইসিসির ইন্টারন্যাশনাল প্যানেলে যুক্ত হন। এর দুই বছর পর তাঁকে আম্পায়ারদের এলিট প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।দীর্ঘ আম্পায়ারিং ক্যারিয়ারে

২০০৬ আইসিসি ট্রফি ফাইনাল, ২০০৭ ও ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ ফাইনাল এবং ২০১০ ও ২০১২ টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনাল পরিচালনা করেন।এর মধ্যে ২০০৯ থেকে ২০১১ পর্যন্ত টানা তিন বছর আইসিসির বর্ষসেরা আম্পায়ার নির্বাচিত হন

আলিম দার। ৪৬ বছর বয়সী এই আম্পায়ার গত মাসে এলিট প্যানেল থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দেন।ব্যতিক্রম বাদে প্রতিটি টেস্ট ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্বে থাকেন দুজন আইসিসি এলিট প্যানেলের আম্পায়ার, ওয়ানডেতে থাকেন একজন।

আইসিসি টুর্নামেন্টের নকআউট পর্বের ম্যাচগুলোর দায়িত্বও দেওয়া হয় তাঁদের হাতে।আলিম দার অবশ্য এখনই আম্পায়ারিং ছেড়ে দিচ্ছেন না। আন্তর্জাতিক আম্পায়ার হিসেবে ম্যাচ পরিচালনা চালিয়ে যাবেন। এ ক্ষেত্রে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড চাইলে তিনি আম্পায়ারিং করতে পারবেন।