সপ্তমবারের মত ফুটবল অস্কারে নতুন ইতিহাস গড়লেন লিওনেল মেসি

আর্জেন্টিনার তিন যুগের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে ঐতিহাসিক মুহূর্তের জোগান দিয়েছেন মহাতারকা মেসি। এর মাধ্যমে তিনি মূলত পুরো বছরটাই নিজের করে নিয়েছেন।ব্যক্তিগত অর্জনের তালিকায় এমন কোনো পুরস্কার নেই, যা মেসি নিজের

করে নেননি। এমনকি একেকটি সম্মাননা স্মারক কয়েকবার করে নিজের দখলেও নিয়েছেন তিনি।এবার রেকর্ড সপ্তমবারের মতো ফুটবলের ‘অস্কার’-এ মনোনয়ন পেয়েছেন এ তারকা। খেলাধুলায় ব্যক্তিগত ও দলীয় অবদানের ভিত্তিতে মোট

ছয়টি ক্যাটাগরিতে দেওয়া হয় মর্যাদাপূর্ণ ‘লরিয়াস ওয়ার্ল্ড অ্যাওয়ার্ড’।কেবল মেসিই নন, বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনাও এ পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন পেয়েছে। লরিয়াসডটকম জানিয়েছে, একই সঙ্গে পিএসজি তারকা কিলিয়ান

এমবাপ্পেও রয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী মেসির সঙ্গে পুরস্কার জেতার দৌড়ে।এ ছাড়া রয়েছেন মোটর রেসিং কিংবদন্তি ম্যাক্স ভারস্ট্যাপেন, অ্যাথলেটিকসে মোন্ডো ডুপলেন্টিস, টেনিস কিংবদন্তি রাফায়েল নাদাল এবং বাস্কেটবলের স্টিফেন কারি।

পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে বছর শেষে এই বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয়।দলীয়ভাবে এ অ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত হয়েছে— চ্যাম্পিয়নস লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ। আর্জেন্টিনার সঙ্গে চলছে তাদের পুরস্কার দখলের লড়াই।

এ ছাড়া ইংল্যান্ড নারী ফুটবল দল, ফ্রান্স রাগবি দল, ন্যাশনাল বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশনের গোল্ডেন স্টেট ওয়ারিয়রস, ফর্মুলা ওয়ানের রেড বুল রেসিং-তারাও পেয়েছে মনোনয়ন।মাস তিনেক আগে শেষ হওয়া কাতার বিশ্বকাপে অনন্য

সব রেকর্ড গড়েছেন মেসি। এই আর্জেন্টাইন অধিনায়ক একমাত্র ফুটবলার হিসেবে এক বিশ্বকাপে গ্রুপপর্ব, শেষ ষোলো,কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল ও ফাইনালে গোল করার রেকর্ড গড়েন। জিতেছেন ২০২২ বিশ্বকাপের গোল্ডেন বল।

যার ফলে একমাত্র ফুটবলার হিসেবে দুই বিশ্বকাপে গোল্ডেন বলের পুরস্কার জিতলেন আর্জেন্টাইন এ ফরোয়ার্ড।বর্তমানে তিনি পিএসজির হয়েও দারুণ ফর্মে রয়েছেন। প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) জার্সিতে ১৯ ম্যাচে ১২ গোল ও ১৪ গোলে অ্যাসিস্ট করেছেন মেসি।