সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে সুখবর পেল মেসি ভক্তরা

লি’ও’নে’ল মে’সি বা’র্সে’লো’না’য় ফি’র’বে’ন কি না, এ নি’য়ে জ’ল্প’না’ক’ল্প’না’ প্র”তিদি’ন’ই বা’ড়’ছে। আ’গা’মী জু’নে পি’এ’স’জি’র স’ঙ্গে মে’সি’র দু’ই ব’ছ’রে’র চু’ক্তি’র মে’য়া’দ শে’ষ হ’য়ে যা’বে।ন’তু’ন কো’নো চু’ক্তি না হ’লে জু’নে’ই মে’সি হ’য়ে যা’বে’ন মু’ক্ত বি’হ’ঙ্গ। যে’তে পা’র’বে’ন যে’কো’নো

ক্লা’বে’ই। যে’কো’নো জা’য়’গা’তে’ই য’দি যে’তে পা’রে’ন, তা’হ’লে নি’জে’র আঁ’তু’ড়’ঘ’র’ বা’র্সে’লো’না’য় ফি’র’বে’ন না কে’ন!বা’র্সে’লো’না’ও ‘চা’য় মে’সি’কে ফে’রা’তে। ত’বে সে’টি’ নি’র্ভ’র ক’র’ছে কি’ছু বি’ষ’য়ে’র ও’প’র। মে’সি নি’জে’ও বা’র্সে’লো’না’য় ফি’র’তে চা’ন। কি’ন্তু মে’সি ‘নি’জে

চা’ন, ফে’রা’র প্র’স্তা’ব’টা যে’ন তি’নি বা’র্সে’লো’না স’ভা’প’তি হো’য়া’ন লা’পো’র্তা’র কা’ছ থে’কে স’রা’স’রি পা’ন’।ডি’সে’ম্ব’রে বি’শ্ব’কা’প জে’তা’র প’র’পর’ই পি’এ’স’জি’র স’ঙ্গে মে’সি’র ন’তু’ন চু’ক্তি ‘হ’য়ে যা’ও’য়া’র ক’থা’ ছি’ল। কি’ন্তু সে’টি হ’য়’নি। শো’না যা’চ্ছে, মে’সি’র কা’র’ণেই না’কি এ’ই

চু’ক্তি’র দে’রি হ’চ্ছে। মে’সি পি’এ’স’জি’তে আ’র’ও কে’ন্দ্রী’য় ভূ’মি’কা চা’ন।কি’লি’য়া’ন এ’ম’বা’প্পে’র স’মা’ন বা বে’শি বে’ত’ন চা’ন। চু’ক্তি’ও ক’র’তে’ চা’ন দু’ই ব’ছ’রে’র জ’ন্য। পি’এ’স’জি’র এ’ই’ দা’বি’গু’লো’তে’ই স’ম’স্যা। মে’সি’কে এ’ম’বা’প্পে’র স’মা’ন বা বে’শি বে’ত’ন দে’ও’য়া নি’য়ে

ব্যাপক বিরোধিতা আছে ক্লাবে।তাদের কথা, ৩৫ বছর বয়সী একজন ফুটবলারকে কেন এমবাপ্পের সমান বেতন দিতে হবে। মেসির সঙ্গে বর্ধিত চুক্তিও এক বছরের বেশি করতে চায় না কাতারি মালিকাধীন ক্লাবটি।চুক্তি নিয়ে সমস্যা তো আছেই।

বিশ্বকাপের পর প্যারিসে ফিরে মেসি পিএসজিকে তেমন কিছুই উপহার দিতে পারেননি। কারও কারও অভিযোগ, তিনি আর্জেন্টিনার জার্সিতে যে ধরনের খেলা খেলেন, সেটি পিএসজির জার্সিতে খেলেন না।এরই মধ্যে পিএসজি চ্যাম্পিয়নস লিগ

থেকে বিদায় নিয়েছে। মেসি–এমবাপ্পে–নেইমার—এই ত্রয়ীকে নিয়েও পরপর দুটি চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলো থেকে বিদায় মানতে কষ্ট হচ্ছে পিএসজি কর্তাদের।শোনা যাচ্ছে, সামনের মৌসুমে তারকাখ্যাতির চেয়ে কার্যকর ফুটবলারদের দিকেই ঝুঁকতে

চায় পিএসজি। সে জন্য মেসি–নেইমারদের ছেড়ে দিতেও পারে দলটি।পিএসজির সঙ্গে মেসির সম্পর্কের টানাপোড়েনের মধ্যেই মেসিকে দলে টানতে চায় বার্সেলোনা।২০২১ সালে বার্সেলোনা ছাড়ার সময় মেসি কাঁদতে কাঁদতে আবারও বার্সেলোনায় ফেরার

ইচ্ছা জানিয়ে এসেছিলেন। বার্সেলোনা এবার তাঁকে ফেরাতে চায়। কিন্তু এই পর্যন্তই। বার্সেলোনার কাছ থেকে পরিপূর্ণ কোনো প্রস্তাব এখনো মেসির কাছে যায়নি বলেই জানা গেছে।এর মধ্যেই সৌদি আরবের ক্লাব আল হিলাল মেসিকে ৪ হাজার কোটি

টাকার প্রস্তাব দিয়ে রেখেছে। প্রস্তাব আছে তাঁর যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকারের ইন্টার মায়ামি ক্লাব থেকেও।বার্সেলোনা কিন্তু চাইলেই মেসিকে নিয়ে নিতে পারবে না। উয়েফার আর্থিক সংগতি নীতির ব্যাপার আছে। অর্থ সংগ্রহের ব্যাপারও আছে।

এরই মধ্যে খবর বেরিয়েছে, মেসিকে দলে ফেরাতে বার্সেলোনা নাকি পৃষ্ঠপোষক খোঁজা শুরু করেছে।আপাতত মেসিকে দলে নেওয়ার আর্থিক সম্ভাব্যতা যাচাই করছে বার্সেলোনা।এদিকে বার্সেলোনাভিত্তিক ক্রীড়া দৈনিক মুন্দো দেপোর্তিবোর খবরে বলা হয়,

মেসি নিজে বার্সেলোনা সভাপতি হোয়ান লাপোর্তার প্রস্তাবের অপেক্ষায় আছেন। মানে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক চান, বার্সেলোনা সভাপতি লাপোর্তা বার্সেলোনায় তাঁর ফেরার প্রস্তাবটা নিজে দেবেন।২০২১ সালে লাপোর্তা দায়িত্ব নেওয়ার

পরই ক্লাব ছাড়তে হয়েছিল মেসিকে। এ নিয়ে অনেকে তাঁকে দায়ীও করে থাকেন। অবশ্য কিছুদিন আগে মেসির বাবা হোর্হে মেসি, যিনি মেসির এজেন্ট হিসেবে কাজ করেন, তাঁর সঙ্গে বৈঠক করেছেন লাপোর্তা।মেসির ফেরা নিয়ে নিজের ইতিবাচক

মনোভাবও জানিয়েছেন লাপোর্তা, ‘মেসি নিজেও জানে, তাঁর জন্য বার্সেলোনার দরজা সব সময়ই খোলা। এখন দেখা যাক। বার্সেলোনা ও মেসির মধ্যকার বর্তমান সম্পর্ক কীভাবে উন্নত করা যাবে, সে নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

মেসি ফুটবল ইতিহাসের সেরা তারকা। বার্সেলোনার ইতিহাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। মেসি জানে, সে আমাদের হৃদয়েই আছে। সে আমাদেরই অংশ।’