শোকাহত ক্রিকেটবিশ্ব, সব কিছু ছেড়ে চলে গেলেন অজি ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ

টেস্ট ক্রিকেট খেলেন না, ওয়ানডেকে বিদায় জানিয়েছিলেন একবছর আগে। এবার আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকেও সরে দাঁড়ালেন অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। তার অধীনেই ২০২১ সালে প্রথমবারের

মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ঘরে তোলে অজিরা।হচ্ছিল। এটা ঠিক হতে দুই দিন সময় লেগেছে। (মেলবোর্ন রেনেগেডসের কোচ) ম্যাকডোনাল্ড আমাকে বলেছেন, সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে সময় নাও, বিষয়টি নিয়ে ভাবো। এটা আবেগী

কোনো বিষয় নয় ফিঞ্চ আরও বলেন, আমি ২০২৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত খেলা চালিয়ে যেতে পারব না। তাই এটাই জাতীয় দল থেকে সরে যাওয়ার সেরা সময়। এখন অবসর নিলে দল সেই বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতি নেয়ার

যথেষ্ট সময় পাবে। আমার পুরো আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে যারা আমায় সমর্থন করেছেন, তাদের সকলকে অসংখ্য ধন্যবাদ।এদিকে ফিঞ্চকে বিদায় জানিয়ে টুইট করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও। নিজেদের টুইটার অ্যাকাউন্টে টি-টোয়েন্টি

বিশ্বকাপসহ একটি ছবি পোস্ট করে ফিঞ্চকে ধন্যবাদ জানিয়েছে তারা।জাতীয় দলের হয়ে ব্যাট-প্যাড তুলে রাখলেও চালিয়ে যাবেন ঘরোয়া ও ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট। ক্যাঙ্গারুদের হয়ে টি টোয়েন্টিতে সর্বাধিক ৩ হাজার ১২০ রান তার।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে যা ৬ষ্ঠ সর্বোচ্চ। ২০২১ এ ফিঞ্চের নেতৃত্বেই প্রথম টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে অস্ট্রেলিয়া। জাতীয় দলের হয়ে ১৪৬ ওয়ানডের পাশাপাশি ৫ টেস্টও খেলেছেন ফিঞ্চ।২০১৮ সালে অভিষেক হওয়ার

পর ওই বছরেই ফিঞ্চ ৫টি টেস্ট খেলেন। ৫ টেস্টে ২৭.৮০ গড়ে তিনি ২৭৮ রান করেছেন। এই সংস্করণে কোনো সেঞ্চুরি নেই। হাঁকিয়েছেন দুটি ফিফট। ২০১৮ এর পর আর কখনো তাকে সাদাপোশাকে দেখা যায়নি।আর ওয়ানডেতে

অভিষেক হয় ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। সবশেষ খেলেন গতবছরের সেপ্টেম্বরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। ১৪৬ ওয়ানডেতে ৩৮.৮৯ গড়ে তার রান ৫ হাজার ৪০৬। সর্বোচ্চ অপরাজিত ১৫৩। সেঞ্চুরি ১৭টি হাফ সেঞ্চুরি ৩০টি।