রাজস্থানের কাছে ম্যাচ হেরে সরাসরি যে বিষয়টাকে দায়ি করলেন চেন্নাইয়ের অধিনায়ক ধোনি

গ’ত’কা’ল ১২ এ’প্রি’ল ক্রি’কে’ট বি’শ্বে’র স’ব’চে’য়ে জ’ন’প্’রি’য় ঘ’রো’য়া ক্রি’কে’ট হা’স ই’ন্ডি’য়া’ন প্রি’মি’য়া’র লি’গে’র ১৬ ত’ম আ’স’রে’র ১৭ ত’ম ম্যা’চে মু’খো’মু’খি হ’য়ে’ছি’ল রা’জ’স্’থান’ র’য়ে’ল ব’না’ম চে’ন্না’ই সু’পা’র কিং। গ’ত কা’ল’কে’র আ’গ প’র্য’ন্ত এ’ই দু’ই দ’ল আ’ই’পি’এ’লে’র

১৬ ত’ম আ’স’রে দু’টি ক’রে ম্যা’চ কে জি’তে’ছি’ল।এ’ই ম্যা’চে রা’জ’স্’থান র’য়্যা’ল’সে’র কা’ছে ৩ উ’ই’কে’টে’র হা’র নি’য়ে মা’ঠ ছে’ড়ে’ছে চে’ন্না’ই সু’পা’র কিং’সে’র ধো’নি’দে’র। আ’র এ’ক’টা নি’য়’মি’ত ঘ’ট’না ম্যা’চ হা’রা’র প’রে অ’নে’ক ক্যা’প্টে’নই ব্য’র্থ’তা’র কা’র’ণ জা’না’তে গি’য়ে

কা’ঠ’গ’ড়া’য় তো’লে’ন ‘দ’লে’র বো’লা’র অ’থ’বা ব্যা’ট’স’ম্’যা’ন’দে’র। ত’বে ম্যা’চ শে’ষে চি’প’কে রা’জ’স্’থা’ন র’য়্যা’ল’সে’র কা’ছে হে’রে ও’ঠা’র প’রে ধো’নি যে’ভা’বে ব্যা’ট’স’ম্’যা’ন’দে’র মু’ণ্ড’পা’ত ক’র’লে’ন, তা’তে ক্যা’প্টে’ন কু’ল ক্র’ম’শ ক্যা’প্টে’ন হ’ট হ’য়ে উ’ঠ’ছে’ন ব’লা যা’য়।

এ’র আ’গে বো’লা’র’দে’র ‘ব’ড্ড বে’শি নো-ও’য়া’ই’ড ক’রা নি’য়ে ধো’নি’কে প্র’কা’শ্’যেই হুঁ’শি’য়া’রি দি’তে শো’না গি’য়ে’ছি’ল যে, ‘হ’য় অ’তি’রি’ক্ত ‘ব’ল ক’রা ক’মা’ও, ন’তু’বা অ’ন্য কো’ন’ও ক্যা’প্টে’নে’র অ’ধী’নে খে’ল’তে হ’বে।’ এ’বা’র রা’জ’স্’থা’নে’র কা’ছে হা’রে’র জ’ন্য

ব্যাটসম্যানদের দায়ি করে ধোনিকে রীতিমতো তিরস্কার করতে শোনা যায়।৩ রানের লজ্জার হারের পরে চেন্নাই অধিনায়ক এটাও স্পষ্ট করে দেন যে, ব্যাটসম্যানরা চার-ছক্কার ফুলঝুরি ফোটাতে না পারায় তাঁর কোনও আক্ষেপ নেই। বরং তাঁর

রাগ ব্যাটাররা সিঙ্গল নিতে না পারায়। সহজেই রান তোলা সম্ভব এমন পরিস্থিতিতে সিএসকের ব্যাটসম্যানরা বড্ড বেশি ডট বল খেলেন। যার ফলেই চেন্নাইকে হারতে হয় বলে দাবি ধোনির।
পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ধোনি বলেন, ‘পিচে স্পিনারদের

জন্য তেমন কোনও সাহায্য ছিল না। তা সত্ত্বেও মাঝের সময়টায় ব্যাটসম্যানরা বড্ড বেশি ডট বল খেলে। যদি পিচে বল থমকে আসত অথবা বল ঘুরত, তাহলেও না হয় মেনে নেওয়া যেত। তবে তেমন কোনও পরিস্থিতি ছিল না। হতে পারে ওদের

অভিজ্ঞ স্পিনাররা বল করছিল। তবে এত শিশিরে বোলারেদর কাজ কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। ব্যাট করা সহজ ছিল। তবু সিঙ্গল নিয়ে স্কোরবোর্ড চালু রাখা গেল না। ম্যাচে এর প্রভাব পড়ে। শেষমেশ এত ডট বল খেলার জন্যই হারতে হয়।’

ধোনিকে যে ব্যক্তিগত মাইলস্টোন কখনও তেমন ভাবায় না, সেটা বোঝা গেল আরও একবার। চেন্নাইকে ২০০তম আইপিএল ম্যাচে নেতৃত্ব দিতে নামার প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘মাইলস্টোন নিয়ে আমার কখনও

মাথাব্যথা থাকে না। ১৯৯ আর ২০০ ম্যাচের মধ্যে কোনও তফাৎ নেই। এই মাইলস্টোনগুলি এটা বুঝিয়ে দেয় যে, আমি কত দীর্ঘদিন ধরে খেলছি। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ আমাকে এত দীর্ঘ সময় ধরে খেলার উপযোগী রাখার জন্য।’

উল্লেখ্য, বুধবার চিপকে শুরুতে ব্যাট করে রাজস্থান রয়্যালস ৮ উইকেটে ১৭৫ রান তোলে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে চেন্নাই সুপার কিংস ২০ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৭২ রানে আটকে যায়। ধোনি ১টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ১৭ বলে ৩২ রান করে অপরাজিত থাকেন।