ব্যর্থ গুরবাজের বদলে KKR-এ লিটন? আশায় বুক বাঁধছেন বাংলাদেশি সমর্থকরা

ক’য়ে’ক’টা ম্যা’চ আ’গে’ই না’ই’ট রা’ই’ডা’র্’সে’র মূ’ল স’ম’স্যা ছি’ল দ’লে’র মি’ড’ল অ’র্ডা’র। কি’ন্তু শে’ষ দু’টো ম্যা’চে দ’ল’কে দা’রু’ণ’ভা’বে নি’র্ভ’র’তা দি’য়ে’ছে’ন মি’ড’ল অ’র্ডা’র ব্যা’টা’র’রা।ভেঙ্ক’টেশ’ আ’ই’য়া’র, নী’তী’শ রা’না, রি’ঙ্’কু সিং’য়ে’র ম’তো ব্যা’টা’র’রা রা’ন

পে’য়ে’ছে’ন। ‘চি’ন্তা ‘বা’ড়ি’য়ে’ছে ‘র’হ’মা’নু’ল্’লাহ গু’র’বা’জে’র ফ’র্ম। এ’ই আ’ফ’গা’ন ও’পে’না’র আ’গে’র দু’টি ম্যা’চে চূ’ড়া’ন্ত ‘ব্য’র্থ ‘হ’য়ে’ছে’ন।বৃ’হ’স্’প’তি’বা’র দি’ল্লি ক্যা’পি’টা’ল’সে’র বি’রু’দ্’ধে কি’ প্র’থ’ম এ’কা’দ’শে থা’ক’বে’ন গু’র’বা’জ?‌ না লিট’ন দা’স’কে খে’লা’নো হ’বে?‌ লি’ট’নে’র

স’ম্ভা’ব’না অ’নে’ক’টা’ই বে’শি।চ’ল’তি IPL-এ পাঁ’চ’টি ম্যা’চ খে’লা হ’য়ে গে’ছে র’হ’মা’নু’ল্লা ‘গু’র’বা’জে’র। রা’ন ক’রে’ছে’ন ১০২, স’র্’বোচ্চ ৫৭। স্ট্রা’ই’ক রে’ট যে আ’হা’ম’রি, সে ক’থা ব’লা যা’বে না।১১৭.২৪ স্ট্রা’ই’ক রে’ট আ’র গড় ২০.‌৪০। প’ঞ্জা’ব কিং’সে’র বি’রু’দ্ধে

প্র’থ’ম ম্যা’চে মো’হা’লি’তে বা’ই’শ রা’ন ক’রে’ছি’লে’ন। ‘প’রে’র ম্যা’চে ই’ডে’নে’ র’য়্যা’ল চ্যা’লে’ঞ্’জা’র্স ব্যা’ঙ্গা’লো’রে’র বি’রু’দ্ধে ‘ক’রে’ছিলে’ন’ ৫৭।গু’জ’রা’ট টা’ই’টা’ন্’সে’র বি’রু’দ্’ধে তৃতী’য় ম্যা’চে ১৫ রা’নে’র বে’শি ক’র’তে পা’রে’ন’নি। পরে’র দু’টি ম্যা’চে চূ’ড়া’ন্ত ‘ব্যর্থ। সা’ন’রা’ই’জা’র্স

হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে শূন্য রানে আউট হয়েছিলেন।আর মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে করেছিলেন মাত্র ৮ রান। এরপরেও কি দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে সুযোগ পাবেন নাইট রাইডার্সের এই ওপেনার?‌ প্রশ্নটা উঠেই গেছে।

রহমানুল্লাহ গুরবাজের ব্যর্থতা অনেকটাই বাড়িয়ে তুলেছে বাংলাদেশের ওপেনার লিটন দাসের অভিষেকের সম্ভাবনা। প্রথম দুটি ম্যাচে তিনি দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারেননি।পরে তিনি দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত মাঠে নামার

সুযোগ হয়নি। যদি বৃহস্পতিবার দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে লিটনকে প্রথম একাদশে দেখা যায় অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।সাদা বলে ক্রিকেটে দারুণ ছন্দে রয়েছেন বাংলাদেশের এই ওপেনার। শেষ ৭ ম্যাচে চারটি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন।

সুতরাং তাঁকে সুযোগ দিতেই পারে কলকাতা নাইট রাইডার্স।আর সেই সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে গুরবাজের ব্যর্থতায়। গুরবাজের মতই উইকেট কিপিংও করতে পারেন লিটন। এখন দেখার লিটন দাসকে সুযোগ দেয় কিনা নাইট রাইডার্স টিম ম্যানেজমেন্ট।

লিটন ছাড়াও লড়াইয়ে রয়েছেন জেসন রয়। ইংল্যান্ডের এই ওপেনার দলের সঙ্গে যোগ দিলেও এখনও একটাও ম্যাচ খেলার সুযোগ পাননি। পাকিস্তান সুপার লিগে গত মাসে দুরন্ত সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন জেসন।

এছাড়া বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজেও সেঞ্চুরি করে এসেছেন। তবে জেসন রয়ের তুলনায় লিটন দাসের সম্ভাবনা অনেকটাই বেশি।উইকেটকিপিং দক্ষতার জন্যই এগিয়ে লিটন। তাঁকে প্রথম একাদশে রাখলে এক ঢিলে দুই

পাখি মারতে পারবে নাইট রাইডার্স টিম ম্যানেজমেন্ট। ওপেন করতে পারেন।সে ক্ষেত্রে লিটন দাসকে উইকেটকিপিং করানো হতে পারে। আর জেসন রয়কে খেলালে সেক্ষেত্রে এন জগদীশনকে উইকেটের পেছনে দাঁড়াতে হবে।