বাংলাওয়াশ হওয়ার পরে অবিশ্বাস্য মন্তব্য করলেন, জস বাটলার

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের বিপক্ষে কোনো সিরিজ হারের স্বাদ পেলে দুই ফরম্যাটের বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। এর আগে কখনোই বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ হারেনি ইংলিশরা। সেখানে স্বাগতিকদের মাটিতে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাওয়াশের

স্বাদ পেতে হয়েছে বাটলার বাহিনীকে।ওয়ানডেতে ২-১ ব্যবধানে ইংলিশদের কাছে সিরিজ হারের পর টি-টোয়েন্টিতে জস বাটলারের দলকে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা দিয়েছে টাইগাররা। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের তিনটিতেই জয় তুলে নিয়েছে

সাকিব আল হাসানের দল।চট্টগ্রামে প্রথম টি-টোয়েন্টি ও মিরপুরে দ্বিতীয় টিয়োন্টি জয়ের পর আগেই সিরিজ নিশ্চিত করে নিয়েছিল বাংলাদেশ। মঙ্গলবার সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ১৬ রানের জয় তুলে নিয়ে ইংলিশদের টি-টোয়েন্টিতে দুঃস্বপ্নের

এক সিরিজ উপহার দিল টাইগাররা।এদিন আগে ব্যাটিং করে লিটন দাসের ৭৩ ও নাজমুল হাসান শান্তর অপরাজিত ৪৭ রানে ভর করে ২০ ওভার শেষে ১৫৮ রানের সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে তাসকিন আহমেদ, মোস্তাফিজদের

নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ১৪২ রানের বেশি করতে পারেনি জস বাটলারের দল। ফলে সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টিতেও ১৬ রানের পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ হারটা খুবই হতাশাজনক বলে মনে করছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক

জস বাটলার। তিনি বলেন, টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারটা খুবই হতাশাজনক। বাংলাদেশকে অভিনন্দন, এই সিরিজে তারা আমাদের সকল বিভাগেই ছাড়িয়ে গেছে।বাটলার বলেন, আজকের ম্যাচে আমরা ডেথ ওভারে কামব্যক করেছিলাম, কিন্তু আমরা

কিছু সুযোগ মিস করেছিলাম মাঠে যেটা সত্যিই হতাশাজনক ছিল। তিনি আরও বলেন, উইকেট সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ভালো হচ্ছিল, তাই আমরা মনে করেছিলাম তাদেরকে নিয়ন্ত্রিত টার্গেটের মধ্যেই রাখতে পেরেছি। আমরা আশা করেছিলাম,

আমরা এই রানটা টপকে যেতে পারবো। কিন্তু সেটা হয়নি। পরপর দুই বলে দুই উইকেটের পতনই গুরুত্বপূর্ন ছিল। আমার নিজের উপরও আমি খুব বেশি হতাশ, কারণ ওই রান আউটটায় আমি ডাইভ দিলে হয়তো বেঁচে যেতে পারতাম।