পুড়ে ছাই হাজার হাজার দোকান, বাকি নেই কিছুই

রা’জ’ধা’নী’র ব’ঙ্গ’বা’জা’রে ভ’য়া’ব’হ আ’গু’ন লা’গা’র ঘ’ট’না ঘ’টে’ছে। আ’গু’ন নি’য়’ন্ত্র’ণে কা’জ ক’র’ছে ফা’য়া’র সা’র্ভি’সে’র ৫০ টি ই’উ’নি’ট। এ’র’ই ম’ধ্যে সে’খা’নে যো’গ দি’য়ে’ছে সে’না’বা’হি’নী, নৌ ও বি’মা’ন’বা’হি’নী’র এ’বং ৩টি হে’লি’ক’প্টা’র।

ম’ঙ্গ’ল’বা’র (৪ এপ্রিল) স’কা’ল ৬টা ১০ মি’নি’টে’র দি’কে ব’ঙ্গ’বা’জা’রে’র এ’নে’ক্স মা’র্কে’টে’র পা’শে’র টি’ন’শে’ড মা’র্কে’ট’টি’তে এ’ই অ’গ্নি’কা’ণ্ড ‘ঘটে।ব’ঙ্গ’বা’জা’র মা’র্কে’টে’র” কি’ছু ‘অং’শ ছি’ল তি’ন ত’লা এ’বং কি’ছু অং’শ ছি’ল চা’র ত’লা। ব্য’ব’সা’য়ী’রা ব’ল’ছে’ন সে’খা’নে

অন্তত সাড়ে চার থেকে পাঁচ হাজার দোকান ছিল। তবে ভয়াবহ আগুনে একেবারে ভস্ম হয়ে গেছে সব। মাটিতে মিশে গেছে পুরো মার্কেট।আগুনের ভয়াবহতায় নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাচ্ছে দমকল বাহিনী। এরই মধ্যে উৎসুক জনতার ভিড়ে আরও

বেগ পেতে হচ্ছে ফায়ার সার্ভিসকে। এছাড়া সেখানে প্রাথমিকভাবে পানির সংকটও দেখা দেয়। পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক মুসলিম হলের পুকুর থেকে সাতটি পাইপ লাগিয়ে পানি নিচ্ছে ফায়ার সার্ভিস।

আশপাশের কয়েকটি ভবনেও রয়েছে মার্কেট। সেখানেও ছড়িয়ে পড়েছে আগুন। সেখানকার মার্কেটের ব্যবসায়ীরা তাদের মালামাল অন্যত্র সরিয়ে নিচ্ছেন।ছেলে, মেয়েদের প্যান্ট, শার্টসহ কাপড়ের জন্য ঢাকার বিখ্যাত বঙ্গবাজারের

মার্কেট। মঙ্গলবার ভোরের আগুনে পুড়ছে মার্কেটটির বেশিরভাগ দোকান। আসছে ঈদকে কেন্দ্র করে সব দোকানেই মজুত করে রাখা হয়েছিল বিপুল কাপড়। আগুন পুরো মার্কেটে ছড়িয়ে পড়লে সব পুড়ে ছাই হয়ে যাওয়ার ভয় করছেন ব্যবসায়ীরা। এতে পথে বসার আশঙ্কা করছেন তারা।এখন পর্যন্ত অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা সম্ভব হয়নি।