চলছে তুমুল বিতর্ক!! ইফতারের সময় ম্যাচ বন্ধ না রাখার নির্দেশ দিল ফ্রান্স ফুটবল

ই’ফ’তা’রে’র স’ম’য় মু’স’লি’ম খে’লো’য়া’ড়’দে’র ই’ফ’তা’রে’র জ’ন্য কো’নো ম্যা’চ সা’ম’য়ি’ক ব’ন্ধ না রা’খ’তে নি’র্দে’শ দি’য়ে’ছে ফ্রা’ন্স ফু’ট’ব’ল ফে’ডা’রে’শ’ন।স্থা’নী’য় গ’ণ’মা’ধ্য’মে প্র’কা’শিত রি’পো’র্টে এ ক’থা ব’লা হ’য়ে’ছে।ইং’লি’শ প্রি’মি’য়া’র লি’গে এ’ই অ’নু’ম’তি দে’য়া হ’লে’ও

এ’ই নী’তি ফ্রে’ঞ্চ ফু’ট’ব’ল ফে’ডা’রেশ’নের’ আ”ই’নের সা’থে সা’ম’ঞ্জ’স্য’পূ’র্ণ ন’য় ব’লে’ই’ এ’ম’ন সি’দ্ধা’ন্ত নে’য়া হ’য়ে’ছে।রে’ফা’রি’দের এ’ক ই-মে’ই’ল বা’র্তা’য় ফে’ডা’রে’শ’নে’র প’ক্ষ থে’কে এই’ নি’র্দে’শ’না দে’য়া হ’য়ে’ছে ব’লে বে’শ কি’ছু গণ’মা’ধ্যমে’র রি’পো’র্টে এ’সে’ছে। এ’খা’নে ব’লা

হয়েছে, ইফতারের কারণে বেশ কিছু ম্যাচে ব্যঘাত ঘটায় তা ফেডারেশনের নজরে এসেছে।এ সম্পর্কে ফেডারেশনের ফেডারেল রেফারি কমিশনের প্রধান এরিক বোর্গিনি বলেছেন, ‘আমাদের পরিকল্পনা হচ্ছে সবকিছুর জন্য নির্ধারিত সময় রয়েছে। ক্রীড়ার

জন্য সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে। সকলের জন্য নিজ নিজ ধর্ম পালনের সময়ও রয়েছে।’তিনি জানিয়েছেন, ফেডারেশনের কাছে তথ্য আছে অপেশাদার পর্যায়ে বেশ কিছু ম্যাচে খেলোয়াড়দের ইফতারের জন্য সময় দিতে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছিল।

আইনে এই ধরনের কোনো অনুমতি নেই। এ সময় তিনি ফুটবলে ধর্মনিরপেক্ষতা নীতির কঠোরভাবে সম্মান জানানোর বিষয়টিও সামনে নিয়ে আসেন।ইংলিশ ফুটবল অবশ্য সব ধরনের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে এ বছর পবিত্র রমজান মাসে মুসলিম খেলোয়াড়দের

জন্য ইফতারের সময় ম্যাচ সাময়িক বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে। এ বছর ২২ মার্চ থেকে যুক্তরাজ্যে রোজা শুরু হয়েছে।এ বিষয়ে নিসের কোচ দিদিয়ের দিগার্ড বলেছেন এবার বেশ কিছু মুসলিম খেলোয়াড় কোনো সমস্যা ছাড়াই রমজান মাস পালন করছেন।

যদিও তিনি জানিয়েছেন ফ্রান্সের উচিৎ এ সময় কিছুক্ষণের জন্য বিরতি দেয়া।তিনি বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে হয়তো কেউ চিন্তা করছে না। কারণ আমরা মুসলিম দেশ নই। যে দেশে তুমি আছো সেই দেশের রীতি-রেওয়াজ তোমাকে মানতে হবে।’