ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে বড় ঘরোয়া আসরের পরিকল্পনা করছে সৌদি, খেলতে পারেন ভারতীয়রা

ক্রি’কে’ট বি’শ্বে দি’ন দি’ন বা’ড়’ছে ফ্রা’ঞ্চা’ই’জি ক্রি’কে’টে’র ক’দ’র। ব’ল’তে গে’লে এ’ভা’বে ব’ল’তে হ’য় যে ক্রি’কে’ট বি’শ্বে’র স’র্বো’চ্চ নি’য়’ন্’ত্র’ক সং’স্থা আ’ই’সি’সি’র টি-টো’য়ে’ন্টি বি’শ্ব’কা’পে থে’কে’ও এ’খন আ’ই’পি’এ’ল পি’এ’স’এ’ল বি’পি’এ’ল এ’ই আ’স’র গু’লো বে’শি

জ’ম’জ’মা’ট ভা’বে অ’নু’ষ্’ঠিত হ’য়।এ’খ’ন’কা’র স’ম’য় ক্রি’কে’টা’র’রা ফ্রা’ঞ্চা’ই’জি লি’গ গু’লো খে’ল’তে হু’ম’ড়ি খে’য়ে প’ড়ে। এ’খানে’ ক্রি’কে’ট বো’র্ড এ’খ’ন ক্রি’কে’টা’র’দে’র সে’ই সু’যো’গ ক’রে দি’চ্ছে দি’ন দি’ন। ‘ব’র্ত’মা’নে যে ভা’বে ফ্রা’ঞ্চা’ই’জি লি’গ বা’ড়’ছে তা’তে ভ’বিষ্য’ৎ

ক্রি’কে’টও য’দি ফু’ট’ব’লে’র ম’ত হ’য় তা’তে আ’শ্চ’র্য ‘হ’ও’য়া’র কি’ছু থা’ক’বে না।এ’শি’য়া’র অ’ন্য’ত’ম খে’লা প্রি’য় দে’শ সৌ’দি আ’র’ব স’র’কা’র ই’ন্ডি’য়া’ন প্রি’মি’য়া’র লি’গে’র মা’লিক’দে’র স’ঙ্গে ক’থা ব’লে’ছে। তা’রা এ’ম’ন এ’ক’টি প’রি’ক’ল্’পনা ক’র’তে চ’লে’ছে যা ‘চি’র’ত’রে

ক্রি’কে’টে’র ছ’বি’টা’কে প’রি’ব’র্’তন ক’রে দি’তে পা’রে। সৌ’দি আ’র’বে’র ফ’র্মু’লা ও’য়া’ন গ্র্যা’ন্ড প্রি’ক্সে’র মা’ধ্য’মে তা’রা খে’লা’ধু’লা’র প’দ’চি’হ্ন এ’বং’ LIV গ’ল্ফ-এ ক’রা বি’নি’য়ো’গে’ স’ন্তু’ষ্ট ‘নয়’, উপ’সা’গ’রী’য় রা’ষ্ট্র’টি বি’শ্বে’র স’ব’চে’য়ে ধ’নী টি-টো’য়ে’ন্’টি টু’র্না’মে’ন্ট ‘ক’রা’তে

চাইছে, এবং এটাই তাদের পরবর্তী প্রকল্প।অর্থাৎ ক্রিকেটেই তারা নজর দিচ্ছেন। বর্তমানে, বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (BCCI) দ্বারা নির্ধারিত নিয়ম অনুসারে, ভারতীয় খেলোয়াড়দের বিদেশী T20 প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ

নিষিদ্ধ করা হয়েছে, তবে সৌদি আরব সরকারের প্রতিনিধিদের একটি প্রস্তাবের ফলে সেই নিয়ম শিথিল হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।দ্য এজ-এর একটি প্রতিবেদন অনুসারে, পরিকল্পনার পিছনে আলোচনা এক বছর আগে শুরু হয়েছিল,

কারণ যে কোনও প্রস্তাবিত লিগকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) দ্বারা অনুমোদিত এবং সদস্য দেশগুলির দ্বারা অনুমোদিত হতে হবে। ক্রিকেটে সৌদি আরবের বিনিয়োগের আগ্রহের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আইসিসির

চেয়ারম্যান গ্রেগ বার্কলে।তিনি বলেছিলেন, ‘আপনি যদি অন্যান্য খেলা দেখেন তাহলে সৌদি আরব সে সবের সঙ্গে জড়িত, আমি কল্পনা করতে পারি যে ক্রিকেট এমন একটি জিনিস যা তাদের কাছে আরও আকর্ষণীয় হবে। সাধারণত খেলাধুলায় তাদের

অগ্রগতির পরিপ্রেক্ষিতে। ক্রিকেট সৌদি আরবের জন্য বেশ ভালো কাজ করবে। তারা খেলাধুলায় বিনিয়োগ করতে বেশ আগ্রহী। এবং তাদের আঞ্চলিক উপস্থিতি দেখে, ক্রিকেটকে অনুসরণ করা বেশ সুস্পষ্ট বলে মনে হবে।’একটি খেলা-পরিবর্তন

প্রতিযোগিতার সম্ভাবনা হল ভারত ও সৌদি আরবের মধ্যে সম্পর্ককে শক্তিশালী করার অংশ এবং পরবর্তীটি ২০৩০ সালের মধ্যে ভারতের জন্য নিজেকে এক নম্বর পর্যটন গন্তব্যে পরিণত করার আশা। বর্তমানে, সংযুক্ত আরব আমির শাহিত পশ্চিম এশীয়

অঞ্চলে ক্রিকেট ম্যাচের জন্য পছন্দের স্থান, তবে সৌদি আরব ক্রিকেট ফেডারেশনের চেয়ারম্যান প্রিন্স সৌদ বিন মিশাল আল-সৌদের মতে সৌদি আরব একটি ‘গ্লোবাল ক্রিকেটিং ডেস্টিনেশন’ হতে চায়।সংযুক্ত আরব আমিরাতের ইতিমধ্যেই

নিজস্ব সংক্ষিপ্ত-ফর্মের প্রতিযোগিতা রয়েছে যেখানে গত বছর ILT20 চালু হয়েছে। দেশের দুর্বল ঘরোয়া ব্যবস্থার কারণে বেশ কিছু বিদেশী খেলোয়াড় রয়েছে। বর্তমানে ভারত সবথেকে ধোনী ক্রিকেট লিগ আয়োজন করে থাকে, এখন যদি সৌদি আরব এমনটা করে তাহলে ক্রিকেট কোন দিকে যায় সেটাই দেখার।