ক্যারিয়ারের সেরা ফর্ম ফিরে পেয়ে আইসিসি থেকে বিশাল সুখবর পেল শান্ত

বাংলাদেশ ক্রিকেটে অভিষেক হওয়ার পরে প্রথম কয়েকটি ম্যাচ ভালো খেললেও পরে তার ছন্দ হারিয়ে নিজেকে হারিয়ে ফেলেন ক্রিকেটের ২২ গজের মধ্য থেকে। বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেরা এই ওপেনার তার ফ্রম হারানোর পরে

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছাড়া বিভিন্ন জায়গাতে ট্রোলের শিকার হয় বহুবার। এমনকি তাকে ট্রোল করে লর্ড উপাধি দেন বাংলাদেশ ক্রিকেট পাড়ার অনেকেই।বাংলাদেশ ক্রিকেটের ভক্তদের দাবি উঠেছিল একটা সময় তাকে দল থেকে বাদ

দেওয়া হোক। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং এশিয়া কাপের একাদশের শান্তকে দেখে অবাক হয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট ভক্তদের মধ্যে অনেকেই। শান্ত কে নিয়ে সমালোচনা করতে ছাড়েননি ক্রিকেট পাড়ার অনেক সমালোচোকরা।তবে সমালোচকদের

জবাব এখন শান্ত ব্যাট হাতে দিয়ে চলেছে। এ বছরের শেষ হওয়া বিপিএল থেকে শুরু করে এখনো পর্যন্ত দুর্দান্ত ফর্মে আছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টি সিরিজের সেরা পারফর্মার ছিলেন তিনিই। যথাক্রমে ৫১, ৪৬* ও ৪৭*

রানের ইনিংস খেলে হয়েছেন সিরিজ সেরাও।এমন পারফরম্যান্সের সুবাদে র‍্যাঙ্কিংয়েও সুখবর পেয়েছেন শান্ত। উঠে এসেছেন ১৬ নম্বরে। শান্ত উন্নতি করেছেন ৬৮ ধাপ। তার নামের পাশে রয়েছে ৫৯৩ রেটিং পয়েন্ট। তিনি কোহলির ঘাড়ে নিঃশ্বাস

ফেলছেন। ভারতীয় এই ব্যাটিং তারকা ৬১২ পয়েন্ট নিয়ে ১৫ নম্বরে আছেন তিনি।টি-টোয়েন্টি ব্যাটারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের ব্যাটারদের মধ্যে সেরা অবস্থানে রয়েছেন শান্তই। বাংলাদেশের অন্য ব্যাটারদের মধ্যে উন্নতি করেছেন লিটন দাস।

তিনি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিয়ার সেরা ৭৩ রানের ইনিংস খেলেছেন। ৫৬৬ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তার বর্তমান অবস্থান ২২ নম্বরে।এ ছাড়া সেরা পঞ্চাশে রয়েছেন কেবল আফিফ হোসেন। শেষ ম্যাচে একাদশের বাইরে থাকলেও ৪৮৬

পয়েন্ট নিয়ে ৫০ নম্বরে আছেন তিনি। টি-টোয়েন্টি বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে সেরা ২০ এ রয়েছেন কেবল মুস্তাফিজুর রহমান। ৬১১ পয়েন্ট নিয়ে তিনি ২০ নম্বরেই অবস্থান করছেন।এ ছাড়া ৫৮৮ পয়েন্ট নিয়ে ২৪ নম্বরে সাকিব আল হাসান। ৫৬০

পয়েন্ট নিয়ে ৩১ নম্বরে নাসুম আহমেদ। তাদের জায়গায় পরিবর্তন হয়নি। বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে সবচেয়ে উন্নতি করেছেন তাসকিন আহমেদ। সিরিজ জুড়ে দুর্দান্ত পারফর্ম করে ৫২৯ পয়েন্ট নিয়ে উঠে এসেছেন যৌথভাবে ৪১ নম্বরে।

উন্নতি হয়েছে আরেক পেসার হাসান মাহমুদেরও। তিনি ৫১৩ পয়েন্ট নয়ে আছেন ৪৭ নম্বরে। এটা তার ক্যারিয়ার সেরা রেটিংও বটে। অলরাউন্ডারদের মধ্যে যথারীতি শীর্ষে আছেন সাকিব আল হাসান। তার রেটিং পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬৮। এ ছাড়া সেরা ২০ এ নেই বাংলাদেশের আর কোনো অলরাউন্ডার।