কাতার বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনাকে যে বিশেষ উপহার দিচ্ছেন অধিনায়ক মেসি

বিশ্ব ফুটবল ইতিহাসে ফুটবলপ্রেমীদের কাছে আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি এক আবেগের নাম। পুরো বিশ্বে তাঁকে এক নামেই চেনে ফুটবল বিশ্ব। এবারের বিশ্বকাপ জয়ের নেপথ্যের নায়ক দলের অধিনায়ক ১০ নম্বর জার্সিধারী

লিওনেল মেসি। তাঁর পরিবার, জীবনধারা–সবকিছুই সমর্থকদের কাছে কৌতূহলের বিষয়।বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের অধিনায়ক লিওনেল মেসি ব্যক্তিগত জীবনেও বেশ শৌখিন, ব্যক্তিগত উড়োজাহাজ থেকে বিলাসবহুল

বাড়ি–কী নেই তাঁর। সংগ্রহে আছে ২৪ ক্যারেটের সোনায় মোড়ানো আইফোন এসএক্স ম্যাক্স।আর্জেন্টিনার ফুটবলবিষয়ক ব্লগ মুন্দো আলবিসেলেস্তের প্রতিষ্ঠাতা রয় নেইমার এক টুইটে জানান, বিশ্বকাপজয়ী সতীর্থদের জন্য এবার বিশেষ

পুরস্কার দিচ্ছেন এই আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। বিশ্বকাপজয়ী দলের খেলোয়াড় ও স্টাফ মিলিয়ে মোট ৩৫ সদস্যের জন্য ২৪ ক্যারেটের সোনায় মোড়ানো আইফোন অর্ডার করেছেন মেসি। এর পেছনে মেসির খরচ হয়েছে এক লাখ ৭৫ হাজার ইউরো,

যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় দুই কোটি টাকা। ইতোমধ্যে আইফোনগুলোর ছবি প্রকাশ করেছে ডিজাইনকারী সংস্থা আইডিজাইন।সংস্থাটির তথ্যমতে, বিশ্বকাপজয়ী সদস্যদের নিয়ে সাফল্য উদযাপন করতে বিশেষ উপহার দিতে চাচ্ছিলেন মেসি।

প্রথমে তিনি ঘড়ি দেবেন ভেবেছিলেন। পরে সতীর্থদের সঙ্গে আলোচনা হলে, তাঁরা মেসিকে এমন কিছু দিতে বলেন–যা সব সময় মনে রাখা যাবে। তখন মেসি সোনায় মোড়ানো আইফোন দেওয়ার কথা বলেন।আইডিজাইনের সেই আইফোনগুলোর

ছবিতে দেখা যায়, সোনায় মোড়ানো মুঠোফোনগুলোর পেছনে আর্জেন্টিনার তিনবার বিশ্বকাপ জয়ের প্রতীক হিসেবে তিনটি তারকা, আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের লোগো, খেলোয়াড়দের নাম ও জার্সি নম্বর খোদাই করা হয়েছে। সতীর্থদের উপহার

দেওয়ার পাশাপাশি নিজের জন্যও সোনায় মোড়ানো আরেকটি আইফোন কিনেছেন মেসি।মেসির আগের আইফোনের পেছনে মেসির জার্সি নম্বর ১০ এবং স্ত্রীসহ সন্তানদের নাম খোদাই করা রয়েছে। শুধু তাই নয়, আর্জেন্টিনা ফুটবল দল ও এফসি

বার্সেলোনার লোগোও রয়েছে মুঠোফোনটিতে। মেসির জন্য সোনায় মোড়ানো আইফোনটি তৈরি করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক আইডিজাইন গোল্ড। ২০১৯ সালে কেনা সেই আইফোনটির দাম প্রায় ২১ হাজার মার্কিন ডলার।তবে, আইডিজাইন গোল্ড

প্রতিষ্ঠানটি শুধু মেসির জন্য নয়, সোনায় মোড়ানো আইফোন করে দিয়েছে আরও অনেকের জন্য। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন–নেইমার, স্টিভেন জেরার্ড, কিলিয়ান এমবাপ্পে, কেভিন ডি ব্রুইন ও কনর ম্যাকগ্রেগরদের মতো বিখ্যাত ফুটলাররা।