এমবাপ্পেকে প্রাধান্য দিয়ে ভিনিসিয়াসকে দুঃখী করতে চায় না রিয়াল মাদ্রিদ

রিয়াল মাদ্রিদের মেইন ম্যান কে? এই প্রশ্নটা যদি করা হয় তাহলে নিশ্চিত ভাবে কারও নাম হয়তো এই মুহূর্তে বলা সম্ভব নয়। কেননা, এখন রিয়াল মাদ্রিদের মেইনম্যান বলে প্রাধান্য পাওয়া কেউ নেই।কিন্তু তারপরও রিয়াল মাদ্রিদের যে প্লেয়ার

এখন সবচেয়ে বেশি হাইলাইটস হচ্ছে তার নাম ভিনিসিয়াস জুনিয়র। তাই ভিনিসিয়াস জুনিয়রকে রিয়াল মাদ্রিদের মেইন ম্যান না বললেও অন্যতম প্রধান প্লেয়ার তো বলাই যায়।যদি এমবাপ্পে আসে তাহলে স্বাভাবিক ভাবেই সেই আলোটা চলে

যাবে এমবাপ্পের কাছে। আর গত মৌসুমে যেভাবে এমবাপ্পেকে কেনার চেষ্টা করেছিল সেটা যদি এবারও করে তাহলে ড্রেসিং রুমেও এর প্রভাব পরতে পারে।তাই এমবাপ্পেকে কিনতে গিয়ে নিজেদের ড্রেসিং রুমের পরিবেশ নষ্ট করতে চায় না রিয়াল

মাদ্রিদ। তাছাড়া ভিনিসিয়াসকেও আঘাত দিতে চায় না তারা।এমবাপ্পে গত সামারে পিএসজির সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করলেও তার ভবিষ্যত এখনও অনিশ্চিত। আগামী মৌসুমে ক্লাব ছাড়তে পারেন এই তারকা। তবে এবার তাকে কেনার জন্য মরিয়া

হবে না রিয়াল মাদ্রিদ।গত সামারে এমবাপ্পেকে পাওয়ার জন্য অনেকগুলো বিষয়ে ছাড় দিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। বেতনের প্রতিশ্রুতি ছিল আকাশ ছোঁয়া, বিশাল অংকের বোনাসের প্রতিশ্রুতি সহ আরও অনেক সুবিধা।তবে এবার আর সেই পথে

হাটবে না রিয়াল মাদ্রিদ। এমবাপ্পেকে পাওয়ার সুযোগ থাকলে হয়তো তারা এগিয়ে আসবে। কিন্তু সেটা অন্যান্য প্লেয়ারদের মত করেই। তার জন্য কোন বাড়তি সুবিধা থাকবে না।স্প্যানিশ গনমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, এসব ভেবে এখনই

ঘুম নষ্ট করতে রাজি নয় রিয়াল মাদ্রিদ। এমবাপ্পেকে পাওয়ার সুযোগ থাকলে যদি সেটা রিয়ালের নিয়ম মত হয় তাহলে হবে, না হলে নাই। এমবাপ্পেকে বিশেষ সুবিধা দিয়ে কেনার আর কোন ইচ্ছা নেই রিয়ালের। এতে করে ড্রেসিং রুমের পরিবেশ নষ্ট হতে পারে বলেই মনে করছে রিয়াল কর্তারা।