আমি বিশ্বকাপ ফাইনালে একটা ভুল সিদ্ধান্ত দিয়েছি: সাইমন মার্চিনিয়াক

কাতার বিশ্বকাপের ফাইনালে আর্জেন্টিনা-ফ্রান্সের ম্যাচ পরিচালনাকারী রেফারি সাইমন মার্চিনিয়াক জানিয়েছেন, তিনি ফাইনালে একটি ভুল সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন। সাইমন পোল্যান্ডের প্রথম রেফারি যিনি বিশ্বকাপের ফাইনালে

রেফারির দায়িত্ব পালন করেছেন।বিশ্বকাপ শেষ হবার পর থেকে তিনি ফুটবল বোদ্ধা আর সমর্থকদের কাছ থেকে অনেক কথা শুনে আসছিলেন। কিন্তু ম্যাচে তিনটি পেনাল্টি ও ফরাসি ফুটবলার থুরামের বক্সের ভেতর ইচ্ছাকৃতভাবে

পড়ে গিয়ে ফাউলের আবেদন করা সবই তিনি সামাল দিয়েছেন নিজেই। এর জন্য তাকে ভিএআর প্রযুক্তির সাহায্যও নেয়ার দরকার হয়নি।৪১ বছর বয়সী এই রেফারির দাবি ফাইনালটা একেবারে পরিষ্কার ছিল না তার কাছে। পোল্যান্ডের

গণমাধ্যম স্পোর্টস পি.এল.‘কে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, অবশ্যই এই ম্যাচে আমার একটা ভুল সিদ্ধান্ত ছিল। আমি ফ্রেঞ্চদের একটি কাউন্টার অ্যাটাক থামিয়ে দেই ফাউলের জন্য। যেখানে আর্জেন্টিনার মার্কোস আকুনা

বাজেভাবে ফাউল করেছিল। আমি ভেবেছিলাম ফুটবলারের শুশ্রূষা দরকার। কিন্তু আমি ভুল ছিলাম, কারণ তেমন আহত হয়নি ফুটবলার। আমি চাইলে খেলা চালিয়ে পরে কার্ড দেখাতে পারতাম। এটা আসলেই অনেক কঠিন। ফাইনালের মতো খেলায় আপনার এমন ভুল আপনাকে অনেক প্রশ্নের সম্মুখীন করতে পারে। তবে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে ম্যাচে বড় ধরনের কোনো ভুল হয়নি।