অবিশ্বাস্য ৯০০ কেজি গরুর মাংস খেয়েই বাড়ি ফেরেন মেসিরা মুহুর্তেই ভিডিও ভাইরাল

কাতারে শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনালে ফ্রান্সকে টাইব্রেকারে হারিয়ে ৩৬ বছর পর শিরোপার খরা কাটায় লিওনেল মেসির নেতৃত্বাধীন আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্যে কাতারে যাওয়ার আগে দুই হাজার পাউন্ড (প্রায় ৯০০ কেজি) করে গরুর মাংস

সঙ্গে করে নিয়ে যায় আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ে। উরুগুয়ে বাজে পারফরম্যান্সের কারণে কাতার বিশ্বকাপের প্রথম পর্ব থেকেই বিদায় নেয়। তবে লিওনেল মেসিরা গুরুর মাংস খেয়ে ঠিকই শিরোপা নিয়ে বাড়ি ফেরে। আর্জেন্টাইন সংস্কৃতির রান্না

ও খাওয়া-দাওয়াসহ বিভিন্ন কারণে মেসিরা পাঁচ তারকা হোটেলে না থেকে কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে থাকার সিদ্ধান্ত নেয়। তাদের এ সিদ্ধান্ত শেষপর্যন্ত কাজে লাগে। মেসিদের বিখ্যাত খাবার ‘আসাদো’ তৈরি করতে দরকার পড়ে গরুর

মাংসের। গরুর বিভিন্ন অংশের মাংস নিয়ে সসেজের মিশ্রণে গ্রিল করে রান্না করা হয় ‘আসাদো’। আর্জেন্টাইনদের প্রিয় খাবার এটি। যেকোনো উৎসব বা বড় আয়োজনে দুটি দেশেই জনপ্রিয় এই ‘আসাদো’ রান্না করা হয়।খাবারের বিষয়ে

আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্কালোনি বলেছিলেন, ‘আসাদোতে খাবারের চেয়েও বেশি খুঁজে পাই আমাদের সংস্কৃতিকে। এটি আমার প্রিয় খাবার। তবে এর থেকেও আমাদের বেশি নজর থাকবে বিশ্বকাপে। আমরা চাই দলের ভেতরকার রসায়নটি মজবুত এবং একতা বৃদ্ধি করতে।

https://help.twitter.com/en/twitter-for-websites-ads-info-and-privacy